খেলার মাঠ

হ্যাগলি ওভালেও চলবে বাউন্সারের প্রতিযোগিতা

প্রকাশিত

ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে সিরিজের প্রথম টেস্টে দুই দলই বাউন্সারের মহড়া বসিয়েছিল। ভিন্ন কন্ডিশন হলেও বাংলাদেশি পেসারদের শর্ট পিচ বল প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের তটস্থ করে রেখেছিল। হ্যাগলি ওভালে দ্বিতীয় টেস্টেও চলবে একই রকম বাউন্সারের তীব্র প্রতিযোগিতা।

প্রথম টেস্টের শেষ দিকে বাউন্সারের প্রতিযোগিতা চলেছে একটু বেশিই। যে কারণে দু’দলের ব্যাটসম্যানদের আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমকে তো সরাসরি চলে যেতে হয়েছিল হাসপাতালে। বলের আঘাত পেয়েছিলেন কিউই ক্রিকেটার নেইল ওয়েগনারও।

কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট গণমাধ্যমকে জানালেন, তাদের বোলিং কৌশলে অল্প কিছু পরিবর্তন পরিলক্ষিত হতে পারে। তবে বাউন্সারে পরিবর্তন আসবে না। দ্বিতীয় টেস্টেও চলবে বাউন্সারের মহড়া।

বোল্টের ভাষায়, ‘আমরা বাউন্সার পদ্ধতি ব্যবহার করছি অল্প কয়েক ম্যাচ ধরে। তবে আমরা এর সফল ব্যবহারই করছি। শর্ট পিচ বোলিং মোকাবেলা করাটা সব সময় ভয়ের ব্যাপার। তারপরও আমি নিশ্চিত দুই দলের মধ্যেই শর্ট পিচ বোলিংয়ের মানসিকতা থাকবে প্রথম টেস্টের মতো।’

তিনি গণমাধ্যমকে স্পষ্টভাবে জানালেন, ‘একজন ফাস্ট বোলারের জন্য শর্ট বল করা হচ্ছে বিশেষ দক্ষতা। তবে আমি মনে করি, শর্ট বলের ব্যবহারটা সবাইকে বুঝতে হবে। আসলে এটা ব্যাটসম্যানকে ভয় দেখাতে ব্যবহার করা হয়।’

খেলার মাঠ এর আরও খবর